Logo

‘মায়ের প্রতি ভালোবাসা যেন একদিনের জন্য না হয়’

নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: রবিবার, ৯ মে, ২০২১
‘মায়ের প্রতি ভালোবাসা যেন একদিনের জন্য না হয়’

পরিবারের প্রতি দায়বদ্ধতা যত কমে তত বেশী একদিনের ভালোবাসার উৎপত্তি হয়। এসবের উৎপত্তি তাই পাশ্চাত্য দেশগুলোতে হয়েছে। সোস্যাল মিডিয়ায় কারণে সব দেশে প্রভাব পড়েছে।

পাশ্চাত্যে বাবা মায়ের সাথে ছেলেমেয়েরা থাকেনা। অনেকে খবরও নেয়না। ছেলে মেয়ে বাড়িতে এলে বা মা ছেলেমেয়ের কাছে গেলে আগেই জিজ্ঞেস করে নেয় বাইরে থেকে খেয়ে আসবে কিনা? ওরা তাই এক দিন মা-বাবাকে ফুল আর বাইরে খাবার খাওয়াইয়ে ভালবাসার ঋণ শোধ করে।

বিভিন্ন দিবসের একটা কমার্সিয়াল ব্যাপারও আছে। এই দিবস উপলক্ষে বেচাকিনি হয় প্রচুর। ব্যবসায়ীরা ভাল টাকা আয় করতে পারে।

আমাদের সমাজ এখনও মা বাবাকে একদম বাইরে রাখা হয়না। অনেকেই আমরা প্রতিদিন মায়ের সাথে কথা বলি। আমার গত দশ‘মায়ের প্রতি ভালোবাসা যেন একদিনের জন্য না হয়’ বছর বাইরে থাকা সময়ে আমি মায়ের সাথে প্রতিদিন ফোনে কথা বলিনি এরকম খুব কমই হয়েছে। আমার মা এক দিন কথা না বললে পাগল হয়ে যান। আমার কাছে তাই প্রতিদিনই মা দিবস।

ফেইসবুকে ছবি দেওয়ার চেয়ে জরুরী দায়িত্ব পালন করা। মা-বাবার প্রতি দায়িত্ব পালন না করে এক দিন ছবি দেওয়ার মধ্যে তেমন কিছু নাই। বরং পূর্ণ দায়িত্ব পালন করার মধ্য দিয়ে মায়ের প্রতি ভালোবাসা প্রকাশ করলে আমাদের অনেক মায়ের জীবন দুর্বিসহ হতোনা। জগতের সকল মা ভাল থাকুক। তাদের জীবন ভরে উঠুক সন্তানের ভালোবাসায়।

মে ০৯, ২০২১

ড. মো. ফজলুল করিম

বিশিষ্ট লেখক, কলামিস্ট, গবেষক এবং

শিক্ষক: মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, টাঙ্গাইল।

সংবাদটি শেয়ার করুন


এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

লাইক দিয়ে সাথে থাকুন।

Theme Created By Tarunkantho.Com