Logo

নিজের আইডলের হাতে ক্যাপ পরিধান এ যেনো স্বপ্ন দেখার আগেই পুরণ হওয়ার মত

নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: শুক্রবার, ২৮ মে, ২০২১

আঃ আলীম. স্টাফ রিপোর্টার-

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের পেস আক্রমণে আরো এক তরুন বোলারের অভিষেক হলো। হয়তো আবারো কোন মোস্তাফিজ কিংবা তাসকিন আহমদের যোগ্য সঙ্গী হিসাবে দলকে সামনে থেকে প্রতিনিধিত্ব করা কোন চমকপ্রদ বোলিং আশা করছেন দেশের কোটি কোটি ক্রিকেট ভক্ত।

তার বোলিং জাদুতে নতুন কোন মাত্রা দেখতে অপেক্ষায় বাংলাদেশ তথা ক্রিকেট বিশ্ব।

হ্যা বলছি, বাংলাদেশ শ্রীলংকার মধ্যকার চলতি এই সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশ দলের সদ্য অভিষেক হওয়া মোঃ শরিফুলের কথাই বলছি।

হালকা পাতলা গড়নের বেশ লম্বা বাহাতি এই ক্রিকেটারের আইডল, বিশ্ব কাঁপানো দ্যা ফিজ খ্যাত বিশ্ব ক্রিকেটের বিস্ময় বালক মোস্তাফিজুর রহমান।

শরিফুলের ছোট্ট ক্রিকেট ক্যারিয়ার টা স্বপ্নের মত হলে ও জাতীয় দল পর্যন্ত পৌঁছাতে তার বেগ পেতে হয়েছে অনেক। অভিষেক ম্যাচে তার বোলিং দেখেই নিজেকে তৈরি করা শুরু করেন শরিফুল স্বপ্ন দেখেন একদিন মোস্তাফিজুর রহমানের সাথে খেলবেন।নিজের আইডলের নাম ও রাখেন এই দ্যা ফিজকেই।সেই থেকে তার পথচলা শুরু।

নিজের সবটুকু ডেলে দিয়ে নেমে পড়েন স্বপ্ন পুরনের সেই অভীষ্ট লক্ষ নিয়ে। একজন জীবন্ত কিংবদন্তির বাস্তব মুখী অমর বানী “স্বপ্ন দেখুন,সাহস করুন,শুরু করুন,এবং লেগে থাকুন। সাফল্য আসবেই।শরিফুলের বেলায় এই কথাটির প্রতিটি অক্ষর মিলেছে তার জীবনের সাথে।

২০১৫ সালে যখন বাংলাদেশ- পাকিস্তানের টি টুয়েন্টি ম্যাচ হচ্ছিলো, তখন শরিফুল এই খেলাটি নিজের ঘরে দেখতে পারেন নি। কারন তখন শরিফুলের বাসায় টিভি ছিল না। বাজারের চায়ের দোকানে এসে খেলা দেখেছিল শরিফুল। আর সেই ম্যাচে অভিষিক্ত মোস্তাফিজ কে দেখে তার মনে বাহাতি পেসার হওয়ার ইচ্ছাটা প্রবল আকার ধারন করে।সেই ম্যাচেই শরিফুল বাহাতি পেসার হওয়ার স্বপ্ন দেখা শুরু করেছিল।

মোস্তাফিজ কে আইডল মেনে স্বপ্নযাত্রা শুরু করেছিল শরিফুল।স্বপ্ন পুরনে শত ভাগ সফল শরিফুলের আজ আইডলের কাছ থেকে ওয়ানডে অভিষিক্ত ক্যাপ পরিধান করার সৌভাগ্য হয়েছে।নিজের এমন ভাগ্য কয় জন মানুষেরই বা হয়! শ্রীলংকার ইনিংসে উদ্বোধনী ব্যাটস ম্যান হিসাবে খেলতে থাকা ১৪ রান করা কুশাল পেরেরাকে ক্যাচ আউট করে নিজের ক্যারিয়ারের প্রথম উইকেট শিকার করে জানান দিলেন, মোস্তাফিজের যোগ্য উত্তরসূরী হতে চান তিনি।

কিন্তু পথটাযে এত সহজ নয় এটা ও ভালো করেই জানেন শরিফুল। নিজের সবটুকু নিয়ে দলের হয়ে বড় অবদান রাখতে চান এই তরুন তুর্কী। তার জন্য কঠোর অধ্যাবসায় চালিয়ে যাবেন বলে জানান তিনি।

হয়তো আরো কোন নতুন ইতিহাস রচনা করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। অভিনন্দন জানাই অভিষিক্ত নতুন এই টাইগার ক্রিকেটারকে, তার হাত ধরে রচিত হোক নতুন কোন কল্প কথার এই আশাই করি।মোস্তাফিজ-শরিফুল জুটির হাত ধরে লাল সবুজের পতাকা পত পত করে উড়ুক বিশ্বময়।বিশ্ব ক্রিকেটে বাংলাদেশ এগিয়ে যাক বহুদূর।

সংবাদটি শেয়ার করুন


এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

লাইক দিয়ে সাথে থাকুন।

Theme Created By Tarunkantho.Com