Logo

চবি ভর্তি পরীক্ষা: ৪৯২৬ আসনের বিপরীতে ১ লাখ ৯৫ হাজার আবেদন

নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: রবিবার, ৯ মে, ২০২১
চবি ভর্তি পরীক্ষা: ৪৯২৬ আসনের বিপরীতে ১ লাখ ৯৫ হাজার আবেদন

মোঃ সিরাজুল মনির, চট্টগ্রাম ব্যুরো: অতীতের সকল রেকর্ড ছাড়িয়ে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে প্রথম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে অনলাইনে ভর্তি পরীক্ষার আবেদন গ্রহণ শেষ হয়েছে। চার হাজার ৯২৬টি আসনের বিপরীতে এক লাখ ৯৫ হাজার ৭৯২ জন অনলাইনে আবেদন করেছেন। যা অতীতের তুলনায় সর্বোচ্চ আবেদন। এর আগে ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় ১ লাখ ৬৬ হাজার ৮৭০ জন আবেদন করে।

শনিবার (৮ মে) সকালে চবির আইসিটি সেলের পরিচালক ড. মোহাম্মদ খাইরুল ইসলাম বলেন, আবেদন প্রক্রিয়া শুরুর পর থেকে শেষ পর্যন্ত এক লাখ ৯৫ হাজার ৭৯২ জন শিক্ষার্থী আবেদন করেছে। তবে এটি চূড়ান্ত হিসেব নয়। অনেকে আবেদন করলেও এখনো পরীক্ষার ফি জমা দেয়নি। কারণ আবেদন গ্রহণ শেষ হলেও ভর্তি পরীক্ষার ফি জমা দেয়া যাবে ১১ মে রাত ১১টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত। এ সময়ের মধ্যে পরীক্ষার ফি জমা না দিলে, তার আবেদন বাতিল বলে গণ্য হবে। তাই চূড়ান্ত তথ্য ১১ মে রাত ১২টার পর জানা যাবে।

ইউনিট ভিত্তিক আবেদন:

আইসিটি সেল থেকে পাওয়া তথ্য মতে, এখনো পর্যন্ত ‘এ’ ইউনিটে এক হাজার ২১৪টি আসনের বিপরীতে আবেদন পড়েছে ৭০ হাজার ২০৭টি। ‘বি’ ইউনিটের এক হাজার ২২১টি সাধারণ আসনের বিপরীতে আবেদন পড়েছে ৪৫ হাজার ৭৯২টি। ‘সি’ ইউনিটের ৪৪২টি সাধারণ আসনের বিপরীতে আবেদন পড়েছে ১৪ হাজার ২৭১টি এবং ‘ডি’ ইউনিটের এক হাজার ১৫৭টি আসনের বিপরীতে আবেদন পড়েছে ৫৭ হাজার ৮৯টি।

এছাড়া, ‘বি১’ উপ-ইউনিটে ১২৫টি আসনের বিপরীতে তিন হাজার ৪১৫টি ও ও ‘ডি১’ উপ-ইউনিটে ৩০টি আসনের জন্য পাঁচ হাজার ১৮টি আবেদন জমা পড়েছে।

এর আগে গত ১২ এপ্রিল থেকে অনলাইনের মাধ্যমে ভর্তি আবেদন কার্যক্রম শুরু হয়, যা শেষ হওয়ার কথা ছিল ৩০ এপ্রিল। তবে করোনার পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্ভারজনিত ত্রুটির জন্য এ সময়সীমা আরও এক সপ্তাহ বাড়ানো হয়েছে। সে অনুযায়ী আবেদনের সময় শেষ হয় গতকাল ৭ মে রাত ১২ টায়।

আবেদনপত্র সংশোধন:

ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা ১৮ মে পর্যন্ত আবেদনপত্র সংশোধন করতে পারবে। এর আগে ৯ মে পর্যন্ত আবেদনপত্র সংশোধনের তারিখ নির্ধারণ করা ছিল। তবে এক্ষেত্রে আলাদা ৩০০ টাকা জমা দিতে হবে।

প্রবেশপত্র সংগ্রহ:

ভর্তিচ্ছুরা ৭ জুন থেকে ভর্তি পরীক্ষা শুরুর এক ঘণ্টা আগে পর্যন্ত প্রবেশপত্র সংগ্রহ করতে পারবে। আগে প্রবেশপত্র সংগ্রহ ১ জুন থেকে শুরু হওয়ার কথা ছিল। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে গিয়ে ভর্তির বিস্তারিত তথ্য জানা যাবে। ওয়েবসাইটের লিংক: https://admission.cu.ac.bd/

পরীক্ষা পদ্ধতি:

ভর্তি পরীক্ষা বরাবরের মতোই ১২০ নম্বরে অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে ১০০ নম্বর লিখিত পরীক্ষা (বহুনির্বাচনি) ও বাকি ২০ নম্বর এসএসসি ও এইচএসসি জিপিএ থেকে যুক্ত হবে। বহুনির্বাচনী পদ্ধতির এই ভর্তি পরীক্ষায় প্রতি ভুল উত্তরের জন্য ০.২৫ নম্বর কাটা যাবে। পরীক্ষায় ন্যূনতম পাস নম্বর হবে ৪০।

ভর্তি পরীক্ষার সময়সূচি:

করোনা পরিস্থিতির কারণে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্যাম্পাসেই ভর্তি পরীক্ষার আট দিনব্যাপী সময়সূচি নির্ধারণ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের সংখ্যা বিবেচনায় তিনটি ইউনিটের পরীক্ষার জন্য দুদিন করে সময় রাখা হয়েছে। একটি ইউনিট ও দুটি উপ-ইউনিটের জন্য রাখা হয়েছে আরও দুদিন।

সময়সূচি অনুযায়ী ২২ ও ২৩ জুন ‘বি’ ইউনিট, ২৪ ও ২৫ জুন ‘ডি’ ইউনিট, ২৮ ও ২৯ জুন ‘এ’ ইউনিট ও ৩০ জুন ‘সি’ ইউনিটের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া ১ জুলাই উপ-ইউনিট ‘বি-১’ ও ‘ডি-১’ ইউনিটের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন


এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

লাইক দিয়ে সাথে থাকুন।

Theme Created By Tarunkantho.Com